সুন্দরবনকে নিয়ে দশ দিনের দুর্গাপুজো প্যাকেজ, পর্যটনের প্রসারে একাধিক উদ্যোগ পশ্চিমবঙ্গের

কলকাতা: পশ্চিমবঙ্গে রাজ্যের পর্যটন শিল্পের প্রসারে নতুন নতুন প্রকল্প গ্রহণ করা হচ্ছে । সম্প্রতি কলকাতার এক পাঁচতারা হোটেলে পর্যটন শিল্প ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বৈঠক করে এমনই জানিয়েছেন রাজ্যের নতুন পর্যটনমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। এই মর্মে বিশেষ সাতটি কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বাবুল। পর্যটনের সুদূরপ্রসারী উন্নয়নের জন্য গঠিত এই কমিটিগুলির নেতৃত্বে রয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

পর্যটনমন্ত্রী জানিয়েছেন যে একাধিক পর্যটন ক্ষেত্রকে ধরে ধরে সেই অনুযায়ী বিশেষ প্যাকেজ তৈরি করার পরিকল্পনা করা হচ্ছে। গঙ্গাসাগরের জন্য দিন ১৫-এর প্যাকেজ তৈরি করা যায় কি না, সেই দিয়ে নজর দেওয়া হচ্ছে। পাশাপাশি, দুর্গাপুজোকে কেন্দ্র করে দিন দশেকের প্যাকেজ তৈরি করার ভাবনাচিন্তা চলছে। দুর্গাপুজোর এই প্যাকেজের সঙ্গে সুন্দরবনকে জুড়ে দেওয়ার পরিকল্পনা করা হচ্ছে ।

পর্যটন শিল্পের সঙ্গে যাঁরা জড়িত তাঁদের সঙ্গে একাধিকবার বৈঠক করে কী কী নতুন নতুন পরিকল্পনা নেওয়া যায়, সেই দিকটাও গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে । সার্বিকভাবে, পাহাড়, সমুদ্র থেকে জঙ্গল-সহ রাজ্যের সমস্ত দর্শনীয় স্থান এবং শহর কলকাতার বিভিন্ন ঐতিহ্যকে বিশ্বের দরবারে মেলে ধরতে সর্বতোভাবে চেষ্টা করা হচ্ছে ।

পর্যটনমন্ত্রীর দাবি, আন্তর্জাতিক পর্যটকদের আনাগোনার ক্ষেত্রে গোটা দেশের মধ্যে কলকাতা সপ্তম স্থান অধিকার করেছে। অভ্যন্তরীণ পর্যটকদের আনাগোনার ক্ষেত্রে কলকাতা পঞ্চম স্থানে রয়েছে । এই দুই ক্ষেত্রে কলকাতা যাতে এক নম্বরে চলে আসে সেই পরিকল্পনা করা হচ্ছে বলে জানান বাবুল।

ওই বৈঠকেই পর্যটন শিল্প, হোটেল ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত ব্যবসায়ীরা নতুন হোমস্টে বা হোটেল শুরু করার ক্ষেত্রে একাধিক সমস্যার কথা তুলে ধরেন । এই প্রসঙ্গে ব্যবসায়ীদের বিভিন্ন দাবিদাওয়াকে গুরুত্ব দেওয়ার ব্যাপারে আশ্বাস দেন বাবুল। তবে দমকল, পুলিশ-সহ একাধিক ক্ষেত্রে লাইসেন্স পেতে যে সমস্যা হয় তা একদিনে মেটানো সম্ভব নয় বলেও জানিয়েছেন বাবুল।

আরও পড়ুন

ওনাম উৎসবে মেতে উঠেছে কেরল, চলবে ৮ তারিখ পর্যন্ত

পর্যটন দফতর-পুরসভার যৌথ উদ্যোগ, কলকাতাতেও এ বার হোমস্টে

ভ্রামণিকদের কাছে কেন অনন্য কেরল? রইল একাধিক কারণ

চোখধাঁধানো স্থাপত্যের প্রাসাদ: মাইসোর প্যালেস 

আরও পড়তে পারেন

Leave a Reply

Your email address will not be published.