মাত্র ২৮ জনের উপস্থিতিতে দরজা খুলল বদরীনাথ মন্দিরের

ভ্রমণ অনলাইনডেস্ক: নির্ধারিত সময়ের ১৫ দিন পর কপাট খুলল বদরীনাথ মন্দিরের (Badrinath Temple)। মূল পূজারি-সহ মাত্র ২৮ জনের উপস্থিতিতে শুক্রবার ভোর সাড়ে চারটেয় দরজা খোলে গাড়োয়ালের এই মন্দিরের।

গত বছর, মন্দিরের দরজা খোলার দিন দশ হাজার ভক্ত-পুণ্যার্থী-ভ্রামনিক বদরীনাথে উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু করোনাভাইরাসের জেরে ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা থাকার ফলে মাত্র ২৮ জন উপস্থিত ছিলেন মন্দিরে। গত ২৯ এপ্রিল, কেদারনাথ মন্দিরের দরজা খোলার সময়েও জনা তিরিশ মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, তিথি অনুযায়ী এ বছর বদরীনাথ মন্দিরের দরজা খোলার কথা ছিল ৩০ এপ্রিল। কিন্তু মন্দিরের মূল পূজারিকে কোয়ারান্টাইনে রাখা হয়েছিল বলে নির্ধারিত সময়েসুচির পরিবর্তন করা হয়।

বদরীনাথের মূল পূজারির বাড়ি কেরলে। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের উদ্যোগে লকডাউনের মধ্যেও তাঁকে কেরল থেকে উত্তরাখণ্ডে নিয়ে আসা হয়। কিন্তু রাজ্য সরকারের নির্দেশিকা অনুযায়ী বাধ্যতামূলক ভাবে ১৪ দিনের কোয়ারান্টাইনে যেতে হয় তাঁকে। তাঁর অনুপস্থিতিতে কোনো ভাবেই বদরীনাথ মন্দিরের দরজা খোলা হবে না বলেই, নির্ধারিত দিনটি পিছিয়ে দেয় টেহরি রাজপরিবার। বদরীনাথ মন্দিরের দেখভাল করে এই রাজপরিবারই।

আরও পড়ুন বিশেষ ট্রেনেও ওয়েটিং লিস্ট, নিয়মিত ট্রেন ৩০ জুন পর্যন্ত বাতিল

বদরীনাথ মন্দিরের ইতিহাসে এই প্রথমবার দ্বারোদঘাটনের দিন পিছিয়ে দেওয়া হয়।

তবে এ বার করোনাভাইরাসের তাণ্ডবের জেরে পর্যটকরা বদরীনাথ কবে যেতে পারবেন, বা আগামী ছ’মাসের মধ্যে আদৌ যেতে পারবেন কি না, সে প্রশ্ন থেকেই যায়।

 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।