বিশেষ ট্রেনেও ওয়েটিং লিস্ট, নিয়মিত ট্রেন ৩০ জুন পর্যন্ত বাতিল

ভ্রমণ অনলাইন ডেস্ক: দিল্লির সঙ্গে ভারতের বিভিন্ন শহরের সংযোগকারী বিশেষ ট্রেনগুলিতেও চালু হচ্ছে ‘ওয়েটিং লিস্ট’। ভারতীয় রেলের তরফে জানানো হয়েছে, ২২ মে থেকে বিশেষ ট্রেনগুলিতে এই ‘ওয়েটিং লিস্ট’-এর পরিষেবা দেওয়া হবে।

এ দিকে, নিয়মিত চলাচল করে এমন সব দূরপাল্লার ট্রেন আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত  বাতিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেল। এই মর্মে বৃহস্পতিবার সকালে একটি নির্দেশিকাও জারি করা হয় রেলের তরফে। তবে এই সময়ে ‘স্পেশাল ট্রেন’ আর ‘শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন’ চলবে বলে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

হাওড়া থেকে দিল্লিগামী বিশেষ ট্রেনে। ছবি: রাজীব বসু।

বিশেষ ট্রেনে ওয়েটিং লিস্টের সর্বোচ্চ সীমা বেঁধে দেওয়া হয়েছে। এসি থ্রি টায়ারে সর্বোচ্চ ১০০ জন, এসি টু টায়ারে ৫০ জন, স্লিপার ক্লাসে ২০০ জন, চেয়ার কারে ১০০ জন এবং প্রথম শ্রেণির এসি ও এক্সিকিউটিভ ক্লাসে ওয়েটিং লিস্টে সর্বোচ্চ ২০ জন যাত্রীর নাম থাকবে।

কনফার্মড টিকিট আছে এমন কোনো যাত্রী যদি তাঁর টিকিট বাতিল করেন সে ক্ষেত্রে ক্রমিক সংখ্যা অনুযায়ী সুযোগ মিলবে ওয়েটিং লিস্টের যাত্রীদের। তবে ট্রেনে শারীরিক দূরত্বের নিয়মাবিধি বজায় রাখার জন্য রিজার্ভেশন এগেনস্ট ক্যানসেলেশন (আরএসি) ব্যবস্থা এখনই শুরু হচ্ছে না।

আরও পড়ুন: পর্যটকদের স্বাগত জানাতে তৈরি হচ্ছে গোয়া

এ দিকে এখনকার মতো শুধু দিল্লিগামী ‘এসি স্পেশাল’ নয়, খুব শীঘ্রই মেল, এক্সপ্রেস এবং চেয়ারকার পরিষেবা চালুর ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে রেলের তরফে। এই সমস্ত ট্রেনের ক্ষেত্রেও ওয়েটিং লিস্টের সুবিধা পাওয়া যাবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে। তবে কবে থেকে এই সমস্ত ট্রেন চলবে সেই বিষয়ে কিছু বলা হয়নি।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার থেকেই বিশেষ ট্রেনের পরিষেবা চালু হয়েছে। এখন দেশের বিভিন্ন শহর থেকে দিল্লিগামী ট্রেন চলছে। ট্রেনে ওঠার ক্ষেত্রে প্রচুর কড়াকড়ি করা হচ্ছে। শুধুমাত্র উপসর্গহীন মানুষরাই ট্রেনে উঠতে পারছেন। মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *