DHR toy train

২৫ ডিসেম্বর থেকে ফের চালু হচ্ছে টয় ট্রেন, আপাতত দার্জিলিং-ঘুম জয়রাইড

ভ্রমণঅনলাইন ডেস্ক: দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান হতে চলেছে। শুক্রবার ২৫ ডিসেম্বর থেকে ফের চালু হচ্ছে দার্জিলিং-এর টয় ট্রেন। তবে আপাতত এই পরিষেবা জয়রাইডের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকবে। আর পর্যটকদের মেনে চলতে হবে সমস্ত রকম করোনাবিধি।

দার্জিলিং হিমালয়ান রেলওয়ের অধিকর্তা একে মিশ্র বলেন, তাঁরা টয় ট্রেনে পরিষেবা শুরু করার ব্যাপারে প্রস্তুত ছিলেন। শুধু রাজ্য সরকারের প্রয়োজনীয় অনুমোদনের অপেক্ষায় ছিলেন তাঁরা।

তিনি জানান, রাজ্য সরকারের প্রয়োজনীয় অনুমোদন এসে গিয়েছে। প্রাথমিক ভাবে ২৫ ডিসেম্বর দার্জিলিং এবং ঘুমের মধ্যে জয়রাইড শুরু হবে। দার্জিলিং থেকে বাতাসিয়া লুপ হয়ে ঘুম যাওয়া, আবার দার্জিলিং-এ ফিরে আসা।

বাতাসিয়া লুপে টয় ট্রেন। ছবি সৌজন্যে রেলমন্ত্রী পীযূষ গয়ালের ফেসবুক পেজ।

করোনাভাইরাসের প্রকোপে গত মার্চ থেকে বন্ধ হয়ে গিয়েছিল পরিষেবা। অবশেষে দীর্ঘ ন’মাস পর ফের শুরু হতে চলেছে টয় ট্রেন।

যাত্রীদের করোনাভাইরাস বিধি মেনে চলতে হবে। মাস্ক পরতে হবে, শারীরিক দূরত্ববিধি মেনে চলতে হবে, ব্যবহার করতে হবে হ্যান্ড স্যানিটাইজার। 

টয় ট্রেনে জয়রাইডের জন্য খরচ পড়বে জনপ্রতি ১,০০০, ১,৫০০ এবং ১,৬০০ টাকা।

১৮৮৯ সালে চালু হওয়া দার্জিলিং হিমালয়ান রেলওয়ে (ডিএইচআর) এখন ইউনেস্কো বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকাভুক্ত। বছরে গড়ে ১৫ লক্ষ পর্যটক দার্জিলিং-সিকিম ভ্রমণে আসেন। তাঁদের কাছে ডিএইচআর-এর টয় ট্রেন অন্যতম আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু।

বাতাসিয়া লুপে টয় ট্রেন। ছবি সৌজন্যে রেলমন্ত্রী পীযূষ গয়ালের ফেসবুক পেজ।

দু’টি কামরা নিয়ে টয় ট্রেন চলে। বছরে ৬০ হাজার যাত্রী এতে ভ্রমণ করেন। ডিএইচআর-এর ১৩টি স্টিম ইঞ্জিনই হল মূল আকর্ষণ। বিদেশি পর্যটকরা নিয়মিত চড়েন টয় ট্রেনে।

টয় ট্রেন পরিষেবা ফের শুরু হওয়া প্রসঙ্গে হিমালয়ান হসপিটালিটি এবং ট্যুরিজম নেটওয়ার্ক ডেভেলপমেন্ট-এর সাধারণ সম্পাদক সম্রাট সান্যাল বলেন, “টয় ট্রেন চালু হলে আরও বেশি বেশি পর্যটক দার্জিলিং পাহাড়ে আসবেন। ফলে স্থানীয় অর্থনৈতিক কার্যকলাপও বৃদ্ধি পাবে। পর্যটকদের প্রয়োজনের উপর নির্ভর করে এ ধরনের আরও কিছু পরিষেবা ফিরিয়ে আনা হবে। টয় ট্রেন ফের চালু হওয়ার খবরটা ভ্রমণকারীদের কাছে অত্যন্ত সুসংবাদ।”  

আরও পড়ুন: কোভিড ১৯-এর নতুন স্ট্রেন: আন্তর্জাতিক যাত্রীদের জন্য নতুন নির্দেশিকা জারি করল স্বাস্থ্য মন্ত্রক  

মন্তব্য করুন