তাজমহল-সহ এএসআই-এর আওতাধীন সব পর্যটনস্থল ১৫ মে পর্যন্ত বন্ধ

ভ্রমণঅনলাইন ডেস্ক: ভারতের পুরাতত্ত্ব সর্বেক্ষণের (এএসআই) আওতায় থাকা সমস্ত সৌধ, জাদুঘর এবং সংরক্ষিত স্থল আগামী ১৫ মে পর্যন্ত আপাতত বন্ধ থাকছে। দেশব্যাপী করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ের জেরে এএসআই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এর অর্থ বিশ্বের সব চেয়ে জনপ্রিয় সৌধ তাজমহলেও এক্ষণ ঢোকা যাবে না।

বিশ্বে এই মুহূর্তে সব চেয়ে বেশি করোনা সংক্রমিত দেশ হিসাবে ভারত রয়েছে দ্বিতীয় স্থানে। প্রথম মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। করোনা সংক্রমণের ভয়াবহ পরিস্থিতিতে বিভিন্ন সরকারি সংস্থা নিয়মিত নজরদারি চালাচ্ছে এবং তাদের গাইডলাইনে নিয়মিত প্রয়োজনীয় পরিবর্তন করছে। এএসআই-এর আওতাধীন স্থলগুলি বন্ধ হয়ে যাওয়ার ফলে এক্ষণ দেশের ৩৬৯৩টি সৌধ এবং ৫০টি জাদুঘর বন্ধ হয়ে গেল।   

গুজরাতের সোমনাথ মন্দির, পুরীর জগন্নাথ মন্দির প্রভৃতি তীর্থস্থানে পুজা যথারীতি চলছে, তবে ভক্তদের প্রবেশে নানা বিধিনিষেধ জারি করা হয়েছে।

এই পরিস্থিতিতে দিল্লির লালকেল্লা ১৯ জানুয়ারি থেকে টানা বন্ধ রয়েছে। কিছু মৃত কাকের দেহে অ্যাভিয়েন ইনফ্লুয়েঞ্জা ধরা পড়ার পর লালকেল্লা দর্শনার্থীদের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়।

২০২০ সালের মার্চের শেষ দিকে দেশ জুড়ে লকডাউন জারি হওয়ার পর এএসআই-এর আওতাধীন সব স্থল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। তার পর নানা বিধিনিষেধ আরোপ করার পর সেগুলি জুলাইয়ে আবার খুলেছিল।

এএসআই-এর আওতায় দিল্লিতে লালকেল্লা, কুতব মিনার, হুমায়ুনস টুম (হুমায়ুনের সমাধি) সহ প্রায় ১৭০টি ঐতিহাসিকস্থল রয়েছে। দিল্লির উপরোক্ত তিনটি পর্যটনস্থল সব চেয়ে জনপ্রিয়। গড়ে রোজ ১০ হাজার দর্শনার্থী এই তিনটি জায়গা দেখতে যান।

আরও পড়ুন: বৃহস্পতিবার থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য ফের বন্ধ বেলুড় মঠ

আরও পড়তে পারেন

Leave a Reply

Your email address will not be published.