ভ্রমণের খবর

শীঘ্রই পাহাড়ে আরও টুরিস্ট স্পট, জানালেন পর্যটনমন্ত্রী

ভ্রমণঅনলাইন ডেস্ক: শীঘ্রই আরও নতুন নতুন টুরিস্ট স্পট আসতে চলেছে। এমনই বললেন পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব। পাশাপাশি পুরোনো টুরিস্ট স্পটগুলোকে আরও নতুন করে সাজিয়ে তোলা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

রংবুলের কাছে ধোতরেতে একটি পরিত্যক্ত চা-বাগানকে ঘিরে নতুন পর্যটনস্থল তৈরি করা হবে বলে জানান তিনি। তাঁর কথায়, “চা-বাগানটা পরিত্যক্ত। পুরো জমিটাই মূলত সমতল। ৩৬০ ডিগ্রি দৃশ্য রয়েছে। এই জমির ২৫ একর আমরা কিনব। এখানে কটেজ তৈরি করা হবে, হেলিপ্যাড তৈরি হবে। ‘ডেসটিনেশন ওয়েডিং’-এর ব্যবস্থাও থাকবে। মূল সড়ক থেকে এই স্থানটার দূরত্ব ৫ কিমি। সেই রাস্তাটা নতুন করে তৈরি করা হবে।”

২৫ কোটি টাকায় দার্জিলিং টুরিস্ট লজের ভোল বদল করা হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি। নবরূপে সজ্জিত এই টুরিস্ট লজে একটি রুফটপ রেস্তোরাঁ থাকবে বলে জানিয়েছেন তিনি। কাঞ্চনজঙ্ঘা দেখতে দেখতেই খাবার খাওয়া যাবে। কার্শিয়াং টুরিস্ট লজের জায়গা আরও বাড়ানো হবে। তিনি বলেন, “কার্শিয়াং টুরিস্ট লজের ঠিক নীচেই একটা বাড়ি রয়েছে। ওই বাড়িটাকে টুরিস্ট লজের সঙ্গে জুড়ে দেব। পাশাপাশি ঘর, রেস্তোরাঁ, সব কিছু নতুন করে সাজিয়ে তোলা হবে।” পাশাপাশি কালিম্পং-এর হিলটপ এবং মরগ্যান হাউস সারানোর কাজ চলছে।

গৌতমবাবু বলেন, টাইগার হিলে একটি পুরোনো বাংলোকে নতুন ভাবে তৈরি করা হচ্ছে। ১৯৮৬-এর আন্দোলনে সেটা পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছিল। সেটা তৈরি হলে টাইগার হিলেও মানুষ রাত্রিবাস করতে পারবেন। ফালুট এবং টংলুতে ট্রেকার্স হাট তৈরি হচ্ছে। গৌতমবাবু কথায়, “আট কোটি টাকা খরচে টেন্ট তৈরি করা হচ্ছে এই দুই জায়গায়।”

মংপু, ঝালং এবং চালসায় পর্যটন নিগমের নতুন টুরিস্ট লজ তৈরি হবে বলেও জানিয়েছেন গৌতমবাবু।

Booking.com

Leave a Comment

Your email address will not be published.

You may also like