modi's tea stall

নরেন্দ্র মোদীর চা স্টল হবে পর্যটনস্থল

ভ্রমণ অনলাইনডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ছেলেবেলার কথা নিশ্চয়ই শুনেছেন? তাঁর পরিবারের সকলের খাওয়াপরার দায়িত্ব ছিল তাঁরই কাঁধে। তিনি তখন ছিলেন স্টেশনের এক সামান্য চা বিক্রেতা। ছেলেবেলার সেই ‘চায়েওয়ালা’ থেকে এখন তিনি ভারতের প্রধানমন্ত্রী, যা সাধারণ মানুষের কাছে সত্যিই শিক্ষণীয়।

জানা যায়, গুজরাতের বাদনগর (নরেন্দ্র মোদীর জন্মভূমি) স্টেশনের প্ল্যাটফর্মে একটি চায়ের স্টলে চা বিক্রি করতেন মোদী। সেখানে তিনি নিজেই চা বানিয়ে যাত্রীদের খাওয়াতেন। এই স্টলকে ঘিরেই একটি পর্যটনকেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলা হবে। রাজ্যের পর্যটনমন্ত্রী প্রহ্লাদ সিং পটেল সম্প্রতি বাদনগর ঘুরে এসে এই সিদ্ধান্ত নেন।

এই চায়ের দোকানটির বড়োই জীর্ণ অবস্থা। তবে পর্যটনমন্ত্রী এই দোকানটির ঐতিহ্য নষ্ট করতে চান না। দোকানটিকে তার পুরোনো রূপে রেখেই কাচের শেড দিয়ে ঘিরে দেওয়া হবে। দোকানটি সংস্কার করার কোনো পরিকল্পনা রাজ্যের নেই। আসলে অতীতের ঐতিহ্য যেমন আছে তেমনই রেখে দেওয়া হবে।

প্রধানমন্ত্রীর শৈশবের দিনগুলি সাধারণ মানুষের কাছে একটি গুরুত্বপূর্ণ আলোচনার বিষয় এবং শিক্ষণীয়ও বটে। তিনি একবার বলেছিলেন যে তিনি সাধারণ মানুষের দুঃখ বোঝেন কারণ তিনিও তাঁর বাল্যবয়সে অসম্ভব দারিদ্রতার মধ্য দিয়ে জীবন কাটিয়েছিলেন। সুতরাং ওই টি স্টলের সঙ্গে একটা আবেগও জড়িয়ে আছে। আর সাধারণ মানুষকে সেই আবেগেরই ভাগীদার করতে চায় গুজরাতের পর্যটন মন্ত্রক।

মন্তব্য করুন