ভ্রমণের খবর

এ বার থেকে টাইগার হিলে যেতে লাগবে পুলিশের অনুমতি

sunrise at tiger hill

ভ্রমণ অনলাইনডেস্ক: টাইগার হিলে যেতে হলে এ বার থেকে পুলিশের অনুমতি নিতে হবে। দার্জিলিং-এ যানজট কমাতে এই ব্যবস্থা নিচ্ছে দার্জিলিং পুলিশ। আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে এই ব্যবস্থা কার্যকর হবে।

জায়গায় জায়গায় যানজটে মাঝেমাঝেই নাভিশ্বাস ওঠে শৈলশহর দার্জিলিঙের। বিশেষ করে পর্যটক-মরশুমে তো হিলকার্ট রোডের ওপর গাড়ির লম্বা লাইন লেগে যায়। টাইগার হিল যাওয়ার জন্য শেষ রাত থেকেই গাড়ির ধুম লেগে যায়। গাড়িচালকরা হোটেল থেকে পর্যটকদের তুলে নিয়ে গাড়ি ছোটান টাইগার হিলের পথে। জ্যাম লেগে যায় টাইগার হিলেও। অনেক সময়ে টাইগার হিলের অনেক আগেই পর্যটকদের গাড়ি থেকে নেমে যেতে হয়, তার পর হেঁটে হেঁটে উঠতে হয়।     

আরও পড়ুন ঘরের কাছে আরশিনগর: ঢাঙিকুসুম

শৈলশহর দার্জিলিঙের ট্রাফিক ব্যবস্থা নিয়ে গত এক মাস ধরেই জেলা পুলিশ কথা বলেছে পরিবহণ ও পর্যটন ব্যবসায়ী, গাড়ির মালিক, হোটেল ব্যবসায়ী, জনপ্রতিনিধি ও সাধারণ মানুষের সঙ্গে। এই আলোচনার পরেই ট্রাফিক সংক্রান্ত কিছু নিয়মের কথা ঘোষণা করা হয়েছে।

সিকিমের কয়েকটি পর্যটন কেন্দ্রে যেতে যেমন অনুমতি নিতে হয়, ঠিক সে রকমই দার্জিলিঙের টাইগার হিল যাওয়ার জন্য পুলিশের কাছ থেকে কুপন সংগ্রহ করতে হবে। টাইগার হিল যাওয়ার আগের দিন চকবাজারে সদর ট্র্যাফিক দফতর থেকে এই কুপন নিতে হবে। আপাতত টাইগার হিলের আয়তন, পার্কিং লটের হিসেবে মাথায় রেখে রোজ ৩০০ গাড়িকে কুপন দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ। এ ছাড়াও বাতাসিয়া লুপ, চিড়িয়াখানা, এইচএমআই-এ গাড়ি পার্কিং ও গাড়ি চলাচল নিয়ন্ত্রণ করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। বাতাসিয়া লুপ সকাল ১০টায় খুলবে এবং সেখানে যাওয়ার জন্য কয়েকটি নির্দিষ্ট এলাকাতেই পার্কিং করা যাবে। চিড়িয়াখানা, এইচএমআই-কে পুরোপুরি ‘নো স্টপিং জ়োন’ করা হয়েছে। পূর্ত দফতরের পার্কিং এলাকা থেকে গাড়ি রেখে সেখান থেকে হেঁটে ওই এলাকায় যেতে হবে।

তবে টাইগার হিলে গাড়ির সংখ্যা বেঁধে দেওয়া নিয়ে আপত্তি জানিয়েছে পর্যটন, পরিবহণ, হোটেল ব্যবসায়ীদের সংগঠন হিমালয়ান হসপিট্যালিটি অ্যান্ড ট্যুরিজম ডেভেলপমেন্ট নেটওয়ার্ক। তাদের দাবি, ভরা পর্যটন মরশুমে দিনে হাজার পাঁচেক মানুষ টাইগার হিলে যান। একটি গাড়িতে পাঁচ জন যাত্রী ধরলেও গাড়ির সংখ্যা দাঁড়াচ্ছে হাজারখানেক। সংগঠন বলেছে, নতুন নিয়মে সমস্যা ও বিশৃঙ্খলা তৈরি হতে পারে। সংগঠনের তরফে বৃহস্পতিবারই মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি দিয়ে তাদের আপত্তির কথা জানানো হয়েছে। দার্জিলিং পুলিশের বক্তব্য, দার্জিলিং শহরের যানজট, পার্কিং সমস্যা মেটাতেই সিদ্ধান্তগুলি নেওয়া হয়েছে।

Booking.com

Leave a Comment

Your email address will not be published.

You may also like