আসন্ন মরশুমে গোয়ার সৈকতে হয়তো দেখা যাবে না অত্যন্ত জনপ্রিয় শ্যাকগুলি

  • by

ভ্রমণঅনলাইন ডেস্ক: গোয়ার বিখ্যাত সব সৈকতের সঙ্গে তার ধারে বসানো শ্যাকগুলি কার্যত সমার্থক। পর্যটকরা যতটা গোয়ার সৈকতকে উপভোগ করেন, তার থেকেও হয়তো বেশি উপভোগ করেন এই শ্যাকগুলিকে। এখানে বসে নরম পানীয়ে (গোয়ায় এখন সৈকতে মদ্যপান বন্ধ) চুমুক দিতে দিতে সূর্যাস্ত উপভোগ করার মজাই আলাদা। কিন্তু আসন্ন পর্যটন মরশুমে সম্ভবত এই আনন্দ থেকে বঞ্চিত হতে পারেন পর্যটকরা।

গোয়া সরকার যত দিন না তাদের ‘কোস্টাল ম্যানেজমেন্ট প্ল্যান’-এর রিপোর্ট জমা দিচ্ছে তত দিন এই শ্যাকগুলি চালু করা যাবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে জাতীয় পরিবেশ আদালত। উল্লেখ্য, প্রতি বছর জুন থেকে সেপ্টেম্বর, অর্থাৎ বর্ষার চার মাস এই শ্যাকগুলি থাকে না। অক্টোবর থেকে আবার তা চালু করে দেওয়া হয়। পরিবেশ আদালতের এই নির্দেশের অর্থ, গোয়া সরকার যদি তাদের নির্দেশমতো কাজ না করে তা হলে অক্টোবরে শ্যাকগুলিকে দেখা যাবে না।

আরও পড়ুন পৃথিবীর সব চেয়ে বিস্ময়কর স্টেশনের মধ্যে জায়গা করে নিল মুম্বই

এই কোস্টাল ম্যানেজমেন্ট প্ল্যানের মধ্যে দিয়ে গোয়ার কোন সৈকতে ব্যবসায়িক কাজ চলতে পারে আর কোন সৈকতে শুধুমাত্র পরিবেশবান্ধব কাজকর্ম হতে পারে, তার একটা নির্দেশিকা দেওয়া হয়।  তবে পরিবেশ আদালতের এই নির্দেশের পরে মাথায় হাত শ্যাকমালিকদের। গোয়া শ্যাকমালিক সংগঠনের সভাপতি চ্রুজ কারদোজো জানিয়েছেন, “নির্দেশিকার কপি এখনও আমরা হাতে পাইনি। কিন্তু শ্যাক চালু করতে দেরি হলে, আমাদের জীবিকায় প্রভাব পড়বে।”

উল্লেখ্য, প্রতি বছর বর্ষায় বন্ধ থাকার পর গোয়া সরকারের একটি বিশেষ নীতির মধ্যে দিয়ে এই শ্যাকগুলি আবার খোলা হয়। এই মর্মে তারা একটি লটারির ব্যবস্থা করে। সেই লটারির ভিত্তিতে বিভিন্ন শ্যাকমালিক কোন জায়গায় শ্যাক খুলবেন, তা জানতে পেরে যান। এ বারও ৩১ আগস্ট থেকে এই লটারির কাজ শুরু হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু পরিবেশ আদালতের জন্য তা এখন বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

তবে শ্যাকগুলি চালু করতে খুব বেশি যাতে দেরি না হয়, সেই দিকটা দেখার আশ্বাস দিয়েছে গোয়া সরকার।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।