ভোপাল থেকে চলুন স্থাপত্য এবং ইতিহাসের শহর ভোজপুরে

ভ্রমণঅনলাইন ডেস্ক: ভোপাল থেকে মাত্র ২৮ কিমি দূরে বেতোয়া নদীর ধারে অবস্থিত ইতিহাস এবং স্থাপত্যের শহর ভোজপুর। 

গুহা এবং মন্দিরের জন্য খ্যাত এই শহরের গোড়াপত্তন একাদশ শতকে পারমার বংশের রাজা ভোজের হাত ধরে। গুহাচিত্র, মন্দিরের পাশাপাশি বেতোয়া নদীর ওপরে দু’টি প্রকাণ্ড বাঁধও এই শহরের আকর্ষণ। রাজা ভোজের আমল থেকেই এই বাঁধগুলি রয়েছে। 

আরও পড়ুন শহুরে কোলাহল থেকে মুক্তি পেতে এই বর্ষায় চলুন মধ্যপ্রদেশের পারসিলিতে

ভোজপুরের মূল আকর্ষণ ভোজেশ্বর মন্দির। ভারতের অন্যতম বৃহত্তম শিবলিঙ্গ রয়েছে এই মন্দিরে। ইলোরার কৈলাশ মন্দিরের মতো এই মন্দিরও মাত্র একটি পাথর কেটে তৈরি হয়েছে। মন্দিরের দেওয়ালে রয়েছে বিভিন্ন ঐতিহাসিক চিত্র। তবে সেই চিত্রের কাজ অসম্পূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। 

ভোজেশ্বর মন্দিরের ঠিক উলটো দিকেই রয়েছে একটি গুহা। বর্তমানে সেটি পার্বতী গুহা হিসেবে পরিচিত। এ ছাড়াও পাথর খোদাই করে আঁকা বিভিন্ন চিত্রেরও সন্ধান পাওয়া যায় এই শহরে। 

ধ্বংস হয়ে যাওয়া রাজপ্রাসাদও ভোজপুরের অন্যতম আকর্ষণ। 

আরও পড়তে পারেন

Leave a Reply

Your email address will not be published.