ভ্রমণের খবর

হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা, করবেটে গেলে আর এই কাজটা করা যাবে না

ভ্রমণঅনলাইন ডেস্ক: পর্যটকদের বড়োসড়ো ধাক্কা দিয়ে করবেট-সহ উত্তরাখণ্ডের সব জঙ্গলেই হাতি সাফারি নিষিদ্ধ করেছে উত্তরাখণ্ড হাইকোর্ট। তার সঙ্গে লাগাম টানা হয়েছে জিপ সাফারির ক্ষেত্রেও। শুক্রবার এই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বর্তমানে করবেটে দিনে প্রায় দুশোটা করে জিপসি গাড়ি সাফারির জন্য ঢোকে। করবেটের আশেপাশে থাকা বিভিন্ন বেসরকারি রিসোর্ট নিজেদের মতো করে জিপসিতে সাফারি করায়। তার ওপরে লাগাম দিতে বলেছে হাইকোর্ট। দিনে আর কোনো ভাবেই একশোর বেশি জিপসি জঙ্গলের ভেতরে ঢুকতে পারবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে আদালত।

আরও পড়ুন ফের শুরু হলং লজের অনলাইন বুকিং, কিন্তু…

এ ছাড়া সাফারিতে যাওয়া হাতিগুলিকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে নিজেদের দায়িত্বে নিয়ে আসার জন্য চিফ ওয়াইল্ড লাইফ ওয়ার্ডেনকে নির্দেশ দিয়েছে আদালত। সাময়িক ভাবে এই হাতিগুলিকে রাজাজি জাতীয় উদ্যানে নিয়ে যাওয়া হবে। আদালতের নির্দেশে বলা হয়েছে, “আপাতত হাতিগুলিকে রাজাজি জাতীয় উদ্যানে নিয়ে যেতে হবে। বারো ঘণ্টার মধ্যে পশু চিকিৎসকদের এই হাতিগুলির চিকিৎসা শুরু করতে হবে।”

ছবি: ফেসবুক

রামনগর নিবাসী এক পরিবেশবিদের আবেদনের ভিত্তিতে এই নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

যে সব জিপসির সাফারি করানোর জন্য বৈধ কাগজপত্র থাকবে সেগুলিকেই জঙ্গলের ভেতরে ঢোকার অনুমতি দেওয়া হবে বলে আদালত জানিয়ে দিয়েছে। করবেট ছাড়াও রাজাজি জাতীয় উদ্যানের জন্যও এই নিয়ম প্রযোজ্য হবে বলে জানিয়ে দিয়েছে আদালত।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

You may also like