চেনা ছকের বাইরে: দ্বারকা থেকে ঘুরে আসুন শিবরাজপুর সৈকত

ভ্রমণঅনলাইন ডেস্ক: ভারতের পশ্চিম উপকূলের এই সৈকতে এখনও তেমন ভাবে পা পড়েনি পর্যটকদের। পর্যটন-মানচিত্রেও সে ভাবে পরিচিতি পায়নি এই সৈকত। কিন্তু দ্বারকা থেকে ওখা যাওয়ার পথে এই সৈকতটিকে আর এড়িয়ে যেতে পারবেন না। নির্জনতার সান্নিধ্যে থেকে সমুদ্র উপভোগ করতে চাইলে আপনাকে অবশ্যই আসতে হবে এই সৈকতে।         

আরব সাগরের কূলে নবতম সংযোজন শিবরাজপুর সৈকত। অতি সম্প্রতি গুজরাত সরকার এই সৈকতটি দেশি ও বিদেশি পর্যটকদের জন্য খুলে দিয়েছে। দ্বারকা জেলার শিবরাজপুর গ্রামের এই সৈকত আপনাকে মুগ্ধ করবেই। প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের নিরিখে দেশের অন্যতম শ্রেষ্ঠ সৈকত এই শিবরাজপুর।  

এই শিবরাজপুর সৈকত অতি সম্প্রতি ব্লু ফ্ল্যাগ সার্টিফিকেশন পেয়েছে। ডেনমার্কের অলাভজনক সংগঠন ‘দ্য ফাউন্ডেশন অফ এনভায়রনমেন্টাল এডুকেশন’ এই ব্লু ফ্ল্যাগ সার্টিফিকেট দেয়। পরিবেশ, নিরাপত্তা, যাতায়াতের সুবিধা ইত্যাদি বিষয় বিবেচনা করে পর্যটনকেন্দ্রগুলিকে এই সার্টিফিকেট দেওয়া হয়। ভারতের ৮টি সৈকত এই সার্টিফিকেট পেয়েছে। তার মধ্যে শিবরাজপুর সৈকত অন্যতম।

দ্বারকা-ওখা হাইওয়েতেই পড়ে এই শিবরাজপুর গ্রাম। কিছুটা বাঁ দিকে গেলেই সৈকত। পথে পড়ে শ্রীভবনাথ মহাদেব মন্দির। দ্বারকা থেকে সৈকতের দূরত্ব ১৩ কিমি, ওখা লাইটহাউস থেকে সাড়ে ২৩ কিমি।

আপাতত শিবরাজপুরে থাকার কোনো ব্যবস্থা নেই। তবে গুজরাত সরকার ২০ কোটি টাকা খরচ করে শিবরাজপুরে পর্যটকদের জন্য নানা পরিকাঠামো গড়ে তুলছে। আরও পরিকল্পনা রাজ্য সরকারের রয়েছে। তার জন্য ১৫০ কোটি থেকে ২০০ কোটি টাকা খরচ ধরা হয়েছে।

এখন দ্বারকাতে থেকেই ঘুরে নিন শিবরাজপুর। এই অঞ্চলের কাথিয়াওয়াড়ি খাওয়াদাওয়া ও আতিথেয়তা আপনি মুগ্ধ হয়ে যাবেন। এবং অচিরেই শিবরাজপুর দেশের অন্যতম শ্রেষ্ঠ সৈকত-গন্তব্য হয়ে উঠবে।  

আরও পড়ুন: চেনা ছকের বাইরে: ঘুরে আসুন লঙ্কারাজ রাবণের মন্দিরে

আরও পড়তে পারেন

Leave a Reply

Your email address will not be published.