শীতে ঘুরে আসুন দিঘায়, টিকিটে বিশেষ ছাড় দিচ্ছে দক্ষিণ পূর্ব রেল

digha beach

ভ্রমণঅনলাইন ডেস্ক: শীতকালে দিনদুয়েকের জন্য কোথায় ঘুরতে যাবেন ভাবছেন? দিঘা ঘুরে আসতে পারেন। দিঘার পর্যটকদের জন্য ট্রেনভাড়ায় বিশেষ ছাড় দেবে দক্ষিণ পূর্ব রেল। বিশেষ কিছু ট্রেনেই পাওয়া যাবে এই সুবিধা।

হাওড়া-দিঘা সুপার এসি এক্সপ্রেস এবং দিঘা থেকে হাওড়াগামী কান্ডারি এক্সপ্রেসে মিলবে এই ছাড়। আগামী ৮ ডিসেম্বর থেকে দেওয়া হবে এই ছাড়। এই তিনটি ট্রেনের এক্সিকিউটিভ ক্লাসে ২০ শতাংশ এবং এসি চেয়ারকারে ১৫ শতাংশ ছাড় মিলবে। আগামী বছরের ৩১ মার্চ পর্যন্ত চলবে এই সুবিধা। এখন অনেকেই সড়কপথে দিঘা যান, তাই ট্রেনের যাত্রী বাড়াতেই এই ব্যবস্থা নিয়েছে রেল। তবে সপ্তাহান্তিক ভ্রমণে অর্থাৎ শুক্র ও  শনিবার এই ছাড় মিলবে না। আর আপ ট্রেনে টিকিটের চাহিদা বেশি থাকায় কান্ডারি এক্সপ্রেসের ক্ষেত্রে শুধু হাওড়াগামী ট্রেনে ছাড় মিলবে।

আরও পড়ুন উত্তরবঙ্গের তিন মন্দির নিয়ে পর্যটন সার্কিট গড়ছে পশ্চিমবঙ্গ

আগে দিঘা যাওয়ার ঝক্কি ছিল অনেক। সরাসরি ট্রেন পথ ছিল না। সড়কপথে দিঘা যেতে হলে খড়গপুর দিয়ে ঘুরে যেতে হত। কারণ তখন নরঘাটে কেলেঘাইয়ের উপর ব্রিজ ছিল না। ট্রেনে দিঘা যেতে চাইলে খড়গপুর পর্যন্ত যাওয়া যেত। তার পর বেলদা-এগরা-কাঁথি হয়ে বাসে বা গাড়িতে দিঘা। ভারতের অন্যতম সুন্দরী সমুদ্রসৈকতে পর্যটকদের পা তেমন পড়ত না।

গত শতকের আশির দশকে ব্যাপারটা নজরে আসে তৎকালীন রেলমন্ত্রী এবিএ গনি খান চৌধুরীর। তিনি হাওড়া-দিঘা রেলপথের শিলান্যাস করেন। কিন্তু ওই পর্যন্তই। কাজ বিশেষ এগোয় না। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রেলমন্ত্রী হওয়ার পর এই প্রকল্পে অর্থ বরাদ্দ হয় এবং হাওড়া-খড়গপুর রেলপথের পাঁশকুড়া থেকে দিঘা পর্যন্ত রেলপথ বসানোর কাজ শুরু হয়। চালু হয় দিঘার ট্রেন।

ধীরে ধীরে রাজ্য তথা দেশের পর্যটন মানচিত্রে গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্র হিসাবে উঠে আসে দিঘার নাম। ইতিমধ্যে নরঘাটে কেলেঘাইয়ের উপর সেতু নির্মিত হওয়ায় সড়কপথে কলকাতা থেকে দিঘার দূরত্ব অনেক কমে যায়। ফলে দিঘায় পর্যটকের সংখ্যা দিন দিন বাড়তে থাকে। আর সপ্তাহান্তে তো কথাই নেই, হোটেলগুলোর একটাই সুর – ঠাঁই নাই, ঠাঁই নাই। ভোরবেলা বাসে বা গাড়িতে দিঘা যাওয়ারও একটা আলাদা মজা আছে। তাই সড়কপথ ও রেলপথের মধ্যে পর্যটক টানার ক্ষেত্রে রীতিমতো প্রতিযোগিতা চলছে। সেই প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতেই রেলের এই অভিনব সিদ্ধান্ত বলে মনে করছেন পর্যটক মহল।

Leave a Reply