৩১ মে থেকে রেলে ফিরছে তৎকাল, আসন সংরক্ষণের সময়সীমা হচ্ছে ১২০ দিন

ভ্রমণ অনলাইন ডেস্ক: রেলে শুরু হচ্ছে তৎকাল বুকিং। এ ছাড়া আগাম আসন সংরক্ষণের জন্য টিকিট কাটার সময়সীমা আগের মতোই ১২০ দিন করা হচ্ছে। এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে ৩১ মে সকাল ৮টা থেকে। রেল মন্ত্রক বৃহস্পতিবার এই ঘোষণা করেছে।

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিজনিত লকডাউনের জেরে স্বাভাবিক ট্রেন চলাচল ৩০ জুন পর্যন্ত স্থগিত করে দিয়েছে ভারতীয় রেল। এরই মধ্যে দিল্লির সঙ্গে ভারতের ১৫টি শহরের সংযোগসাধনের জন্য গত ১২ মে থেকে ১৫ জোড়া ট্রেন চালাতে শুরু করে রেল। ওই ট্রেনগুলি রাজধানী এক্সপ্রেসের সময়ে চলে।

দেশে ট্রেন চলাচল আরও স্বাভাবিক করতে ১ জুন থেকে ২০০টি যাত্রীট্রেন চালু করছে ভারতীয় রেল। এই ট্রেনগুলিতে যেমন এসি কোচ থাকবে, তেমনই থাকবে নন-এসি কোচ।

রেল মন্ত্রক বৃহস্পতিবার ঘোষণা করেছে, যে ৩০টি রাজধানী-সদৃশ ট্রেন চলছে এবং ১ জুন থেকে যে ২০০টি ট্রেন চালু হবে, তাতে তৎকাল কোটা ফিরিয়ে আনা হচ্ছে এবং একই সঙ্গে ১২০ দিন আগে আগাম আসন সংরক্ষণেরও ব্যবস্থা করা যাবে।

আরও পড়ুন: কলকাতা থেকে ১৪ জোড়া ট্রেন চলবে ১ জুন থেকে, দেখুন বিস্তারিত

এ ছাড়া এই সব ট্রেনে পার্সেল এবং মালপত্র বুকিংও শুরু হয়েছে। অর্থাৎ টানা দু’ মাস লকডাউনে থাকার পর একটু একটু করে স্বাভাবিক অবস্থায় ফেরার যে চেষ্টা করছে ভারতীয় রেল, এ সব ব্যবস্থা তারই ইঙ্গিত।

বৃহস্পতিবার এক সরকারি বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সমস্ত বিজ্ঞাপিত ট্রেনে আগাম টিকিট কাটার সময়সীমা ৩০ দিন থেকে বাড়িয়ে ১২০ দিন করার ব্যাপারে রেল মন্ত্রক সিদ্ধান্ত করেছে। এই ২৩০টি ট্রেনেই পার্সেল ও লাগেজ বুকিং করা যাবে।”

Leave a Reply