বিশ্বের উচ্চতম রাস্তা।

এভারেস্ট বেস ক্যাম্পের চেয়েও বেশি উচ্চতায় বিশ্বের উচ্চতম রাস্তা তৈরি করল ভারত

ভ্রমণঅনলাইন ডেস্ক: বিশ্বের উচ্চতম রাস্তা তৈরি করল ভারতের সীমান্ত সড়ক সংগঠন (বর্ডার রোডস অর্গানাইজেশন, Border Roads Organisation)। পূর্ব লাদাখে (Eastern Ladakh) ১৯৩০০ ফুট উচ্চতায় এই রাস্তা তৈরি করা হয়েছে বলে বুধবার এক বিবৃতিতে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার।

মাউন্ট এভারেস্টের বেস ক্যাম্প যে উচ্চতায়, তার চেয়েও বেশি উচ্চতায় তৈরি করা হয়েছে এই সড়ক। নেপালে এভারেস্টের সাউথ বেস ক্যাম্পের উচ্চতা ১৭৫৯৮ ফুট এবং তিব্বতে নর্থ বেস ক্যাম্পের উচ্চতা ১৬৯০০ ফুট।

আরও একটা দিক থেকে এই সড়ক নির্মাণকে বিচার করা যায়। বেশির ভাগ বড়ো বাণিজ্যিক বিমান ৩০০০০ ফুট বা তার বেশি উচ্চতা দিয়ে যায়। লাদাখে নবনির্মিত সড়ক তার অর্ধেকেরও বেশি উচ্চতায় অবস্থিত।

সরকারি বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “এত দিন উচ্চতম সড়ক নির্মাণের শিরোপা ছিল বোলিভিয়ার, এর অবস্থান ১৮৯৫৩ ফুট উচ্চতায়। সেই রেকর্ড ভেঙে দিয়ে ১৯৩০০ ফুট উচ্চতায় সড়ক তৈরি হল লাদাখের উমলিংলা পাসে (Umlingla Pass)। লাদাখের আর্থ সামাজিক উন্নয়ন ও পর্যটনের বিকাশের দিকে লক্ষ রেখে উমলিংলা পাসকে কালো উন্নত সড়কে যুক্ত করা হল।”

দেশের এই দুর্গম ও কঠিন আবহাওয়ার অঞ্চলে পরিকাঠামো উন্নয়নের যথেষ্ট চ্যালেঞ্জিং। শীতে এখানকার তাপমাত্রা মাইনাস ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমে যায়। আর অক্সিজেনের মাত্রা স্বাভাবিকের থেকে ৫০ শতাংশ কম থাকে।

“এই কঠিন আবহাওয়া তুচ্ছ করে, এই কঠিন পরিবেশের সঙ্গে খাপ খাইয়ে, এই দুর্গম কঠিন প্রান্তরে নিজেদের কর্মীদের চূড়ান্ত মানসিক দৃঢ়তার জন্যই সীমান্ত সড়ক সংগঠন এই অসম্ভবকে সম্ভব করতে পেরেছে”, বলা হয়েছে সরকারি বিবৃতিতে।

উমলিংলা পাস দিয়ে তৈরি ৫২ কিমি দীর্ঘ পিচ-সড়ক পূর্ব লাদাখের চুমার সেক্টরের গুরত্বপূর্ণ শহরগুলিকে যুক্ত করেছে। এর ফলে লেহ থেকে ডেমচক ও চিসুমলে সরাসরি পৌঁছে যাওয়ার বিকল্প সড়ক তৈরি হয়ে গেল। ফলে লাদাখের আর্থ সামাজিক উন্নয়ন ও পর্যটনের বিকাশ ঘটবে বলে সরকার মনে করে।

ছবি: পিআইবি ইন্ডিয়া টুইটার

আরও পড়ুন: পুরীর সৈকতে বিচ-শ্যাক তৈরি করা হচ্ছে না, জানিয়ে দিল ওড়িশা সরকার

আরও পড়তে পারেন

Leave a Reply

Your email address will not be published.