আপাতত সমুদ্রতীরবর্তী হোটেল খুলল দিঘায়, খোঁজখবর পর্যটকদের

ভ্রমণঅনলাইন ডেস্ক: লকডাউনের মধ্যে এখন চলছে আনলক-১ পর্ব। এই পর্বে ধীরে ধীরে খুলে দেওয়া হচ্ছে রাজ্যের একাধিক পর্যটনকেন্দ্র। সেই তালিকায় নাম লেখাল দিঘাও।

বৃহস্পতিবার থেকে সমুদ্রশহর দিঘায় হোটেল খুলে দেওয়া হল পর্যটকদের জন্য। তবে আপাতত ওল্ড আর নিউ দিঘায় শুধুমাত্র সমুদ্রের ধারের হোটেলগুলি খোলা হয়েছে বলে দিঘা হোটেল মালিক সংগঠনের তরফে জানানো হয়েছে।

জনবসতি রয়েছে এমন এলাকায় ৩০ জুন পর্যন্ত হোটেল বন্ধই থাকবে বলে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার থেকেই বিভিন্ন হোটেলে অনলাইনের মাধ্যমে ঘর বুকিংও শুরু হয়ে গিয়েছে। পর্যটকরা ইতিমধ্যেই খোঁজখবর নিতেও শুরু করেছেন বলে জানানো হয়েছে।

তবে শারীরিক দূরত্ববিধি বজায় রাখার জন্য হোটেলগুলোয় আপাতত ৩০ শতাংশের বেশি পর্যটকদের রাখা যাবে না বলে জানানো হয়েছে। ৩০ শতাংশ কর্মচারী দিয়ে ওই হোটেলগুলিকে পরিচালনা করতে হবে বলেও সংগঠনের তরফে জানানো হয়েছে। পর্যটকদের সামনে হোটেলের ঘর জীবাণুমুক্ত করতে হবে বলেও সংগঠনের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: ১৫ জুন থেকে পর্যটকদের জন্য ফের খুলছে সুন্দরবন ব্যাঘ্র প্রকল্প

প্রশাসন সূত্রে খবর, এ দিকে দিঘায় বেড়াতে আসা সমস্ত পর্যটকের সুরক্ষায় জীবাণুনাশক টানেল তৈরি করতে বলা হয়েছে হোটেল মালিকদের। জুলাই মাস থেকে ওই পদ্ধতি চালু করা হবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন হোটেল মালিকেরা।

হোটেল খোলার পর এ বার দর্শনীয় স্থানগুলিও খোলার পরিকল্পনা করা হচ্ছে বলে দিঘা-শঙ্করপুর ডেভেলপমেন্ট অথরিটি সূত্রে জানানো হয়েছে। আগামী সপ্তাহ থেকে অমরাবতী পার্ক খোলা হবে বলে জানা গিয়েছে। এ ছাড়াও দিঘা বিজ্ঞান কেন্দ্র, মেরিন অ্যাকোরিয়াম দ্রুত খোলার চেষ্টা চলছে বলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ সূত্রে খবর।

এ দিকে বৃহস্পতিবার হোটেল খোলার খবর পেয়ে গাড়িতে দিঘায় যাচ্ছিলেন কলকাতার একদল পর্যটক। হেঁড়িয়ার কাছে একটি গরুকে বাঁচাতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে জাতীয় সড়কের ধারে নয়ানজুলিতে উলটে যায় তাঁদের গাড়ি। ভিতরে আটকে পড়ে ছ’ জন পর্যটক। স্থানীয়রা তাঁদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *