গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ভষ্মীভূত সুন্দরবন ভ্রমণকারীদের জলযান, বেঁচে গেলেন পর্যটকরা

উজ্জ্বল বন্দ্যোপাধ্যায়, কুলতলি: সুন্দরবনে বেড়াতে এসে বরাত জোরে বেঁচে গেলেন এক দল পর্যটক। আগুনে ভষ্মীভূত হয়ে গেল তাঁদের জলযান। রবিবার দুপুরে এই ঘটনাটি ঘটেছে সুন্দরবনের বনি ক্যাম্পের কাছে।

৩৫ জনের একটি পর্যটকদল বেড়াতে এসেছিলেন সুন্দরবনে। এ দিন তাঁরা নামখানা থেকে রওনা হয়েছিলেন। রামগঙ্গা থেকে বন দফতরের অনুমতি নিয়ে দলটি যখন আজমলমারি জঙ্গলের উদ্দেশে যাচ্ছিল, তখন জলযানে রান্না হচ্ছিল। বনি ক্যাম্পের কাছাকাছি যাওয়ার সময় গ্যাস সিলিন্ডার ফেটে আগুন লেগে যায়।

দ্রুত আগুন ছড়িয়ে পড়তেই আতঙ্কিত হয়ে পড়েন সমস্ত পর্যটক-সহ জলযানের কর্মীরাও। দাউদাউ করে জ্বলতে থাকা জলযানটিকে দেখতে পেয়েই সেখান পৌঁছে যায় মৎস্যজীবীদের একটি নৌকা। মৎস্যজীবীরাই পর্যটকদের উদ্ধার করে নিজেদের নৌকায় নিয়ে আসেন। পাশাপাশি জলন্ত জলযানটিকে নেভানোর কাজও শুরু করেন তাঁরা। আগুনে পুড়ে ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে কাঠের জলযানটি।

Image

যাত্রীদের উদ্ধার করার কাজ চলছে

এর পর সমস্ত পর্যটককেই নিরাপদে নিয়ে যাওয়া হয় বন দফতরের বনি ক্যাম্পে। ঘটনার খবর পেয়ে কুলতলির মৈপীঠ উপকূল থানার পুলিশ স্পিডবোট নিয়ে গিয়ে ওই পর্যটকদের বাড়ি পাঠানোর ব্যবস্থা করে। এই ঘটনায় পর্যটকরা খুবই আতঙ্কিত হয়ে পড়েন।

এই ঘটনার পর সুন্দরবন ভ্রমণকারীদের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠে গেল। এখন সুন্দরবন ভ্রমণে ঢল নেমেছে। বহু পর্যটনসংস্থা নানা আকর্ষণীয় প্যাকেজে পর্যটকদের সুন্দরবন নিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু তারা পর্যটকদের জন্য যথেষ্ট নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেন তো? পর্যটকমহলে এখন সেই প্রশ্ন ঘোরাফেরা করছে।

মন্তব্য করুন