ভ্রমণের খবর

দু’ মাস পর বৃহস্পতিবার খুলে গেল ‘স্বর্গের দরজা!’

ভ্রমণঅনলাইনডেস্ক: পৃথিবীর স্বর্গ কাশ্মীর! আর সেই স্বর্গের দরজা দু’ মাস পর আজ বৃহস্পতিবার পর্যটকদের জন্য খুলে দেওয়া হল। পর্যটকদের স্বাগত জানাতে তৈরি উপত্যকা। একই সঙ্গে সরকারি পরিবহণ আবার চালু করা হচ্ছে। শ্রীনগরের ট্যুরিস্ট রিসেপশন সেন্টারে আরও কাউন্টার খোলা হচ্ছে এবং জম্মু-কাশ্মীরের প্রতিটি জেলায় ২৫টি করে ইন্টারনেট কিয়স্ক বসানো হচ্ছে।  

গত সোমবার জম্মু-কাশ্মীরের রাজ্যপাল সত্য পাল মালিক সমস্ত নিরাপত্তাব্যবস্থা খতিয়ে দেখে জানিয়েছিলেন বৃহস্পতিবার, অর্থাৎ ১০ অক্টোবর থেকে কাশ্মীর উপত্যকা খুলে যাবে পর্যটকদের জন্য।

আরও পড়ুন উপভোগ করুন অক্টোবর, উৎসবের মাস

উল্লেখ্য, গত ৫ আগস্ট কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা প্রদানকারী ৩৭০ নম্বর অনুচ্ছেদটি রদ করে দেয় কেন্দ্র। তার কয়েক দিন আগে থেকেই পর্যটকদের কাশ্মীরে ছেড়ে চলে যেতে বলা হয়।  এমনকি রাতারাতি বাতিল করে দেওয়া হয় অমরনাথ যাত্রাও। কেন্দ্রের কাশ্মীর সিদ্ধান্ত নিয়ে উপত্যকায় ক্ষোভ-বিক্ষোভ মাথাচাড়া দিলে তার মাঝে পড়ে পর্যটকদের যাতে কোনো ক্ষয়ক্ষতি না হয়, সে কারণেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সেই সঙ্গে উপত্যকা জুড়ে চূড়ান্ত নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। বন্ধ করে দেওয়া হয় ইন্টারনেট এবং ফোন পরিষেবা। যদিও ধীরে ধীরে তা ফেরানো হচ্ছে।

এ দিকে, দু’মাস বন্ধ থাকার পর বুধবারই কাশ্মীরের সব হাইস্কুল এবং কলেজ খুলে দেওয়া হয়েছে। যদিও পড়ুয়াদের উপস্থিতি এখনও সে ভাবে নজর কাড়েনি।

ঠিক এই প্রশ্নটাই ঘোরাঘুরি করছে পর্যটকদের ঘিরেও। তাঁদের জন্য দরজা খুলে গেলেও আদৌ কত পর্যটক আসবে সে প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে।

এখন পর্যটনের মরশুম গোটা জম্মু-কাশ্মীর এবং লাদাখ জুড়ে। অন্য বার এই সময়ে শ্রীনগর, গুলমার্গ, পহলগামের সব হোটেলই গমগম করত পর্যটকে। কিন্তু এ বার যেন সব শুনশান। কাশ্মীরে পর্যটনই অর্থনৈতিক অবস্থার উন্নতির অন্যতম একটা কারণ। তাই এখন পর্যটকদের দিকেই মুখ চেয়ে রয়েছেন সাধারণ মানুষ।

এখন দেখার, সরকারি আশ্বাসের পর কাশ্মীরের পরিচিত পর্যটন কেন্দ্রগুলিতে আদৌ ভ্রমণপিপাসুদের আনাগোনা বাড়ে কি না।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

You may also like