করোনাভাইরাস: নাথু লার দরজা বন্ধ পর্যটকদের জন্য

ভ্রমণ অনলাইন ডেস্ক: আপাতত পর্যটকদের জন্য নাথু লার দরজা বন্ধ হয়ে গেল। করোনাভাইরাসের কথা মাথায় রেখে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে সিকিমের পর্যটন দফতর। এ ছাড়া আগামী কয়েক দিন বিদেশি পর্যটকদের সিকিমে ঢোকার অনুমতি দেওয়া হবে না।  

ভারতে এক লাফে অনেকটাই বেড়ে গিয়েছে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। অযথা আতঙ্কের কারণ না থাকলেও, পরিস্থিতি কিছুটা উদ্বেগের তো বটেই। এই অবস্থায় কিছু বিধিনিষেধ জারি করেছে সিকিম।

বৃহস্পতিবার সিকিমের পর্যটন দফতর জানিয়েছে, আগামী কয়েক দিনের জন্য তারা বিদেশি নাগরিকদের ‘ইনার লাইন পারমিট’ দেবে না। এই সিদ্ধান্ত যে করোনাভাইরাসের জন্যই নেওয়া হয়েছে সেটাও জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, সীমান্তবর্তী ছোট্ট রাজ্য হওয়ার ফলে বিদেশি নাগরিকদের সিকিম ভ্রমণের ক্ষেত্রে এই পারমিট নেওয়া বাধ্যতামূলক। এ দিন একটি বিবৃতিতে তারা জানিয়েছে, “করোনাভাইরাসের কথা মাথায় রেখে ৫ মার্চ থেকে কোনো বিদেশ পর্যটককে ইনার লাইন পারমিট দেওয়া হবে না। এর মধ্যে ভুটানের নাগরিকরাও রয়েছেন।”

এর পাশাপাশি নাথুলায় ভ্রমণের অনুমতিও আপাতত আর দেওয়া হবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে সিকিমের পর্যটন দফতর।

আরও পড়ুন: বৈষ্ণোদেবীতে নিখরচায় মিলছে হালোয়া-চানা ও চা

৪৩১০ মিটার উচ্চতায় ভারত-চিন সীমান্তে অবস্থিত নাথু লা। গ্যাংটক থেকে ৫৪ কিমি। নাথু লা যাওয়ার জন্য অনুমোদিত ট্রাভেল এজেন্সির মাধ্যমে অনুমতিপত্র সংগ্রহ করতে হয়। বুধবার থেকে রবিবার, সপ্তাহে পাঁচ দিন নাথু লা যাওয়া যায়।     

কত দিন পর্যন্ত এই বিধিনিষেধ জারি থাকবে, সে ব্যাপারে নিশ্চিত করে কিছু না বলা হলেও, বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন দিন পনেরো পর পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে পারে।

Leave a Reply