করোনা কালে বেড়াতে যাওয়া ! ভাবলে অবশ্যই এগুলি সঙ্গে রাখুন

  • by

ভ্রমণ অনলাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাসের প্রকোপে আপাতত বন্ধ বেড়াতে যাওয়া। কিন্তু কিছু দিন পরে তা কমলেই ভ্রমণপিপাসু মানুষকে আটকে রাখার সাধ্যি কারও নেই। আবার ব্যাগ গুছিয়ে বেরিয়ে পড়তে হবে অজানার উদ্দেশ্যে। তবে হ্যাঁ, অতিমারি পরবর্তী সময়ে বেড়াতে যাওয়া ! ভাবলে তার আগে কিছু কিছু বিষয় আছে যেগুলি অবশ্যই মনে করে সঙ্গে গুছিয়ে নিতে হবে।

ট্র্যাভেল ইনসুরেন্স –

এটা সবার প্রথম করাতে হবে। কারণ এটি জরুরি অবস্থায় সব থেকে বেশি কাজে লাগে, তা সে চিকিৎসার প্রয়োজনে কোথাও ভর্তি হওয়াই হোক বা জরুরি পরিস্থিতিতে দ্রুত ফিরে আসাতেই হোক। তাই ভিসাতেও অনেক ক্ষেত্রে এটি বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। ভারত সরকারও পলিসির মধ্যে এই বিষয়গুলি অন্তর্ভুক্ত করছে।

সেফটি কিটস –

আরও একটি জরুরি বিষয় সেফটি কিট। এর মধ্যে অবশ্যই যেন থাকে মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, জীবাণুনাশক ওয়াইপস, গ্লাভস, চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ওষুধপত্র। এগুলি সঙ্গে রাখলে বেড়ানো অনেক বেশি সুন্দর ও দুঃশ্চিন্তামুক্ত হয়ে উঠবে।

জার্ম প্রোটেকশন ওয়াইপস  ৮০টি, দাম ১৭৯ টাকা

ট্র্যাভেল প্রোটেকট সারফেস ক্লিনার ডিসইনফেকটেন্ট স্প্রে, ২০০এমএল দাম ১৪৩ টাকা।

মেডিকার হ্যান্ড স্যানিটাইজার , ৫০০ এমএল, দাম১৮৭ টাকা।

পুনঃব্যবহার যোগ্য কাটল্যারির সেট ও জলের বোতল –

এগুলি সঙ্গে থাকলে এক দিকে যেমন বারে বারে প্ল্যাস্টিকের চামচের ব্যবহার করতে হবে না। তেমনই বাইরের অপরিষ্কার চামচ মুখের সংস্পর্শে আনতে হবে না। পাশাপাশি প্ল্যাস্টিক ওয়েস্টও কম হবে। স্বাস্থ্যও সুরক্ষিত থাকবে। নিজের বোতল থাকলে পিপাসায় গলা ভেজাতেও যে কোনো জায়গায় কোনো সমস্যা হবে না। তাতে শরীরের আর্দ্রতা বজায় থাকবে।

কাটল্যারি সেট ২৪টি, দাম ৩৮৯ টাকা

শুকনো খাবার –

দীর্ঘ যাত্রাপথ হলে অবশ্যই কিছু শুকনো খাবার সঙ্গেই রাখুন। তাতে খিদে পেলে বার বার ভিড়ের মধ্যে থেকে খাবার কিনতে ও বাইরের খাবার খেতে হবে না।

ছোটো ব্যাগ –

অবশ্যই সঙ্গে একটি ছোটো ব্যাগ রাখুন, যাতে অন্ততপক্ষে আপনার মোবাইল, চার্জার, মাস্ক, স্যানিটাইজার, চাবি, জলের বোতল, টাকা পয়সার ব্যাগ রাখা যায়। তাতে সব সময় বড়ো ব্যাগ বওয়ার ঝক্কি কমবে।

সাইড সোল্ডার ব্যাগ, দাম ৬৯৯ টাকা

সুইস নাইফ –

এটি খুব কাজের একটি জিনিস। ছোট্ট একটি জায়গার মধ্যে অনেকগুলি প্রয়োজনীয় যন্ত্র এক সঙ্গে। এতে ভ্রমণকালে অনেক সমস্যারই সহজ সমাধান করা যায়। তাই এটি সঙ্গে রাখাই যায়। তবে হ্যাঁ বিমানে যাত্রা করলে এটি নেওয়া যাবে না।

রেড সুইস আর্মি নাইফ, দাম ১৯৯২ টাকা।

সিপি কাপ –

সঙ্গে যদি ৩ বছরের কম বয়সি শিশু থাকে তা হলে অবশ্যই একটি সিপি কাপ সঙ্গে রাখুন। এতে তাদের বার বার জল খাওয়ানোর ঝক্কি কমবে। তারা নিজেই খেলার ছলে জল খাবে। আবার জল পড়েও যাবে না।

২২৫ এমএল-এর সিপি কাপ, ১৮৭ টাকা।

ইলেকট্রনিক খেলার সামগ্রী বা বই –

যদি চার বছরের থেকে বেশি বয়সি শিশুদের বা কিশোরদের নিয়ে বেড়াতে যান তা হলে অবশ্যই তাদের সঙ্গে তাদের পছন্দের বই বা খেলার জিনিস নিতে দিন। তাতে আপনাকে বার বার তার বিনোদনের ব্যবস্থা করতে হবে না। তারা নিজেরাই মেতে থাকবে। আপনিও নিশ্চিন্তে অবসর যাপন করতে পারবেন। 

ইলেকট্রনিক টয়েস, দাম ৩৯৯ টাকা।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।