অন্য রাজ্য গন্তব্য পাহাড়

নির্জন স্থান পছন্দ করেন, ঘুরে আসুন উত্তরাখণ্ডের এই গ্রামে

ভ্রমণ অনলাইন ডেস্ক: উত্তরাখণ্ডের বিখ্যাত জায়গাগুলো নিশ্চয়ই ঘুরেছেন। কিন্তু কলাপ গেছেন কি? আপনি যদি নির্জন জায়গা পছন্দ করেন, যেখানে কম পর্যটক যান, এবং সঙ্গে থাকে ট্রেকিং-এর নেশা, তাহলে চলুন কলাপ। প্রায় ৭৮০০ ফিট উচ্চতায়, রুপিন নদীর তীরে, পাইন, দেববারুতে ভরা এই ছোট্ট গ্রামটি, আপনার মন মুগ্ধ করবে। এই গ্রাম থেকে সামনেই দেখা যায় বান্দরপুছ শৃঙ্গ।

শহর থেকে দূরে এই গ্রামের বাসিন্দাদের প্রধান জীবিকা হলো কৃষিকাজ। তবে এখানে একটি এনজিও আছে যারা হোমস্টেতে থাকা এবং ট্রেকিং-এর ব্যবস্থা করে।

এই গ্রামের বাসিন্দাদের, পাণ্ডব ও কৌরবদের উত্তরপুরুষ হিসেবে মানা হয়। এমনকী এই গ্রামের প্রধান মন্দিরই হল কর্ণের মন্দির। যেহেতু কর্ণ তাঁদের বড় দাদা ছিলেন। এই গ্রামের একজন বৃদ্ধ বাসিন্দার কাছ থেকেও রামায়ণ সম্পর্কিত অনেক অজানা তথ্য জানা গেছে। শান্ত এই গ্রামটির একমাত্র জমজমাট উৎসব কর্ণ মহারাজা উৎসব। জানুয়ারি মাসে পান্ডব নৃত্য উৎসব হয়। যদি সেই উৎসব দেখতে চান, তবে আপনাকেও আসতে হবে ওই সময়।

এই গ্রামে ঘাসের ওপর দিয়ে হেঁটে, ঘুরে, পাখির গান শুনে সময় কাটানোর পাশাপাশি আপনাকে খেতেই হবে গাড়োয়ালি খাবার। অবশ্যই খাবেন পাপড়া, ঘাউসাহু (পোস্তোদানা ও গুড়), এবং বিচুটি শাক। গ্রামের বাসিন্দারা সম্প্রতি পর্যটকদের জন্য গরম কাপড় বেচা শুরু করেছেন। এই সবকটিই হাতে বোনা, যা শহরে পাওয়া যায় না।

ছবি: www.kalap.in

কী ভাবে যাবেন?

দিল্লি থেকে কলাপ গ্রামের দূরত্ব ৪৫০ কিলোমিটার এবং দেরাদুন থেকে দূরত্ব ২১০ কিলোমিটার। দেরাদুনই হলো এই গ্রামের নিকটতম বিমানবন্দর। এছাড়া দেরাদুন থেকে ট্রেনে করে যেতে পারেন শাঙ্খরি এবং এখান থেকে ৪ থেকে ৬ ঘন্টা হেঁটে আপনাকে পৌঁছতে হবে কলাপ গ্রামে। এখানে মালবাহক পাওয়া যায় এবং কলাপ এনজিও – এর সাথে যোগাযোগ করে সব ব্যবস্থা আপনি করে নিতে পারেন।

তাহলে আর কী ভাবছেন? তাড়াতাড়ি একটা প্ল্যান করে ঘুরে আসুন কলাপ গ্রামে।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

You may also like